Skip to content

সবচেয়ে সেরা ৬টি কম দামে ভালো ফোন 2023 | Best Phone in BD

বর্তমানে বাংলাদেশের সব জিনিষের দাম বাড়লেও মোবাইল ফোনের দাম তেমন বাড়েনি। এখন কম দামে ভালো ফোন পাওয়া যায়। দুই বছর আগেও যেই মোবাইল গুলো আমরা ২৫-৩০ হাজার টাকায় কিনতাম সেই মোবাইল এখন আমরা ২০ হাজার টাকার মধ্যে পেয়ে যাই।  

আরও পড়ুন…১৫০০০ হাজার টাকার মধ্যে ভালো গেমিং ফোন

আজকে আমরা জানব ১০ থেকে ২০ হাজার টাকার মধ্যে সেরা মোবাইল কোন গুলো এবং প্রতিটা মোবাইল সম্পর্কে লিখার পর আমাদের একটা মতামত জানাব যাতে আপনারা সঠিক মোবাইল বাচাই করতে পারেন। সেই সাথে আপনি যদি সবচেয়ে কম দামে বাটন মোবাইল কিনতে চান তাহলে লিখার উপরে ক্লিক করুন বিস্তারিত জানতে পারবেন। 

আমরা একদম কম দামের মোবাইল থেকে শুরু করে আস্তে আস্তে বেশি দামের মোবাইল গুলোর দিতে যাব। 

১- কম দামে ভালো ফোন | Walton NEXG N70

প্রথমেই থাকছে আমাদের বাংলাদেশি কোম্পানির মোবাইল Walton NEXG N70 এই মোবাইলটির দাম মাত্র ১০৯৯৯ টাকা। চলোন বিস্তারিত জানি। 

ডিসপ্লেঃ মোবাইলটির ডিসপ্লে তে থাকছে ৬.৬” ইঞ্চির আইপিএস এলচিডি টাচস্কিন যার রেজুলেশন ৭২০ x ১৬১২. থাকছে ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট। ১১ হাজার টাকা বাজেটে এই ডিসপ্লে মুটেও খারাপ নয়। আর এই মোবাইলটি খুবি শক্ত পুক্ত।

আরও পড়ুন…১২ হাজার টাকার মধ্যে সেরা Vivo মোবাইল

পারফর্মেন্সঃ এই মোবাইলে ব্যাবহার করা হয়েছে UNISOC TIGER T606 প্রসেসর। যা আপনাকে নরমাল ব্যাবহারের পাশাপাশি টুকটাক গেমিং করতে সাহায্য করবে। তবে এই মোবাইলের সবচেয়ে ভালো দিক হলো এটায় দেওয়া হয়েছে ৮ জিবি রেম যা এই মোবাইলের পারফর্মেন্সকে করবে আরও স্মত। 

ক্যামেরাঃ ব্যাক ক্যামেরায় দেওয়া হয়েছে ৫২ + ২ মেগাপিক্সেল এর দুটি ল্যান্স এবং ফ্রন্ট ক্যামেরায় ব্যাবহার করা হয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের একটি ল্যান্স। কম দামে ভালো ফোন পাওয়া গেলেও এখনো কিন্তু কম দামের মোবাইল গুলোতে ভালো ক্যামেরা ব্যাবহার করা হয়না। এই মোবাইলটিও তার বেতিক্রম নয়। এটা দিয়ে মুটামুটি মানের ছবি তুলা যাবে। 

ব্যাটারিঃ মোবাইলটিকে পাওয়ার জন্য দেওয়া হয়েছে অনেক বড় ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি তার সাথে দেওয়া হয়েছে ১০ ওয়াট চার্জার তবে মোবাইলটিতে সাপোর্ট করবে ১৮ ওয়াট চার্জার। 

মতামতঃ এই মোবাইলটি খুবি শক্ত পুক্ত এবং দাম বিবেচনায় ভালো জিনিষ দিচ্ছে তাই আমি বলব আপনার বাজেট যদি ১১ হাজার টাকার মধ্যেই হয়ে থাকে তাহলে আপনি এই মোবাইল নিতে পারেন। তবে আপনার বাজেট যদি আরও বেশি হয়ে থাকে তাহলে আপনি পরবর্তী মোবাইল গুলো দেখতে পারেন। 

কম দামে ভালো ফোন

Walton NEXG N70 Full Specification

নেটওয়ার্কঃ৪জি
সিমঃদুটি ছোট সিম 
ডিসপ্লেঃ৬.৬’’ ইঞ্চি ৭২০ x ১৬১২ (হার্জ)
ব্যাক ক্যামেরাঃ৫২ + ২ ডুয়াল ল্যান্স
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ৮ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ৫০০০ এমএএইচ, ১০ ওয়াট চার্জার
অপারেটিং সিস্টেমঃএন্ড্রয়েড ১২
প্রসেসরUNISOC TIGER T606
রেমঃ৮ জিবি 
রমঃ৬৪ জিবি
দামঃ১০৯৯০ টাকা 

২- কম দামে ভালো ফোন | Symphony Z60 Plus

আমাদের লিস্টে থাকা দ্বিতীয় মোবাইলটিও বেশ জনপ্রিয় একটি বাংলাদেশি কোম্পানির মোবাইল Symphony Z60 Plus এই মোবাইলটির দাম মাত্র ১১৯৯০ টাকা। ১২ হাজার টাকা বাজেটের মোবাইল গুলোর মধ্যে এটা সবার প্রথমেই থাকবে। জানুন বিস্তারিত…

ডিসপ্লেঃ মোবাইলটির ডিসপ্লে তে দেওয়া হয়েছে ৬.৬” ইঞ্চি আইপিএস টাচস্ক্রীন, রেজুলেশন দেওয়া হয়েছে ৭২০ x  ১৬০০, আছে ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট। ১২ হাজার টাকা দামে এই ডিসপ্লে খুবি ভালো বলা যায়। 

পারফর্মেন্সঃ মোবাইলটিতে দেওয়া হয়েছে UNISOC T616 প্রচেচর। বর্তমানে এই দামের মধ্যে প্রায় সব মোবাইলে এই প্রচেচর দেওয়া হচ্ছে। তবে একি প্রচেচর দিলেও অন্য মোবাইলের থেকে এই মোবাইল পারফর্মেন্স অনেক বেশি এগিয়ে আছে। 

তার কারণ এই মোবাইলে যেই রোম বা মেমোরি ব্যাবহার করা হয়েছে সেটার স্পীড প্রায় পৃথিবীর সবচেয়ে ভালো রোম বা মেমোরির স্পীডের কাছাকাছি। 

ক্যামেরাঃ ব্যাক ক্যামেরায় ব্যাবহার করা হয়েছে ৫০+২ মেগাপিক্সেলের দুটি ল্যান্স এবং ফ্রন্ট ক্যামেরায় দেওয়া হয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের মাত্র একটি ল্যান্স। ১২ হাজার টাকার মোবাইল গুলোর মধ্যে এটা ১-২ নাম্বারের মধ্যেই থাকবে। 

ব্যাটারিঃ ৬.৬” ইঞ্চির বিশাল ডিসপ্লেকে পাওয়ার সাপ্লাই করার জন্য দেওয়া হয়েছে বিশাল ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি আবার চার্জ হবে খুব দ্রুত থাকছে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট। যেটা দিয়ে মাত্র ৪৫ মিনিটে ৬০% চার্জ করা যাবে। 

মতামতঃ এই মোবাইল সম্পর্কে আমার মতামত জানতে চাইলে আমি বলব। আপনার বাজেট যদি ১২ হাজার টাকা হয় তাহলে আপনি এই মোবাইলটি চোখ বন্ধ করে কিনে নিন।  

কম দামে ভালো ফোন

Symphony Z60 Plus Full Specification

নেটওয়ার্কঃ৪জি
সিমঃদুটি ছোট সিম 
ডিসপ্লেঃ৬.৬’’ ইঞ্চি ৭২০ x ১৬০০ (হার্জ)
ব্যাক ক্যামেরাঃ৫০+২ মেগাপিক্সেল, ডুয়াল ল্যান্স
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ৮ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ৫০০০ এমএএইচ, ১৮ ওয়াট চার্জার
অপারেটিং সিস্টেমঃএন্ড্রয়েড ১২
প্রসেসরUNISOC T616
রেমঃ৬ জিবি 
রমঃ১২৮ জিবি (uMCP5) 
দামঃ১১৯৯০ টাকা 

৩- ১২ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন | itel S23

আমাদের লিস্টে থাকা মোবাইলটি হলো itel S23 এই মোবাইলটি ইতি মধ্যে খুব জনপ্রিয়। মোবাইলটির দাম ১২৪৯০ টাকা। দেওয়া হয়েছে ৮ জিবি রেম। 

ডিসপ্লেঃ ডিসপ্লে সাইজ ৬.৬ ইঞ্চি এবং রেজুলেশন দেওয়া হয়েছে ১৬১২ x ৭২০ পিক্সেল। এই দামের মধ্যে কেউই ফুল এইচডি ডিসপ্লে দিচ্ছেনা এখানেও এটাতেও পাচ্চেন না। কিন্তু দেওয়া হয়েছে ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট। মোবাইলটি বেশ স্লিম। হান্ড ফিল পাওয়া যাবে খুবি ভালো। 

পারফর্মেন্সঃ মোবাইলটিতে ব্যাবহার করা হয়েছে UniSoC T606, ১১ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মোবাইল গুলোতে এই প্রচেচর প্রায় সব গুলো মোবাইলেই দেখা যাচ্ছে। 

তবে অন্যদের তুলনায় এই মোবাইল কিছুটা ভালো পারফর্মেন্স দিবে কারণ এটায় দেওয়া হয়েছে ৮ জিবি রেম যা মোবাইলটিকে ভালো পারফর্মেন্স করতে সাহায্য করবে।

ক্যামেরাঃ মোবাইলটির ব্যাক ক্যামেরায় ব্যাবহার করা ডুয়াল ৫০ মেগাপিক্সেল ল্যান্স এবং ফ্রন্ট ক্যামেরায় দেওয়া হয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের একটি মাত্র ল্যান্স। এই মোবাইলটির ক্যামেরা পারফর্মেন্স দাম বিবেচনায় ভালোই পারফর্মেন্স করেছে।

ব্যাটারিঃ এই মোবাইলের ব্যাটারি সেকশনে ব্যাবহার করা হয়েছে অনেক বড় ৫০০০ হাজার এমএএইচ ব্যাটারি। তবে এই মোবাইলটিতে দেওয়া হয়েছে মাত্র ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সিস্টেম যা এটাকে কিছুটা পিছিয়ে দেয় কারণ ১২ হাজার টাকার মোবাইল গুলোতে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জার ব্যাবহার করা হয়ে থাকে । 

মতামতঃ এই মোবাইলটির সবকিছু ভালো হলেও ব্যাটারি চার্জিং স্পীড একটু কম পাবেন। আপনি যদি এটা মেনে নিতে পারেন তাহলে মোবাইলটি খুব ভালো। ১২৪৯০ টাকায় মোবাইলটি খুব ভালো অপশন। এই দামে এর থেকে ভালো ফোন আর একটাও পাবেন না। 

কম দামে ভালো ফোন

itel S23 Full Specification

নেটওয়ার্কঃ৪জি
সিমঃদুটি ছোট সিম 
ডিসপ্লেঃ৬.৬’’ ইঞ্চি ৭২০ x ১৬১২ (৯০ হার্জ)
ব্যাক ক্যামেরাঃডুয়াল ৫০ মেগাপিক্সেল ল্যান্স
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ৮ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ৫০০০ এমএএইচ, ১০ ওয়াট চার্জার
অপারেটিং সিস্টেমঃএন্ড্রয়েড ১২
প্রসেসরUniSoC T606 
রেমঃ৮ জিবি 
রমঃ১২৮ জিবি 
দামঃ১২৪৯০ টাকা 

৪- ১৫০০০ টাকার মধ্যে ভালো গেমিং ফোন | Infinix Hot 13

আমাদের তালিকায় থাকা ৪ নাম্বার মোবাইলটি হলো Infinix Hot 13 মোবাইল দাম মাত্র ১৪৯৯৯ (৪/১২৮) টাকা। আপনার বাজেট যদি হয় ১৫ হাজার টাকার আশে পাশে তাহলে এটা হতে পারে আপনার সেরা পছন্দ।

ডিসপ্লেঃ  ডিসপ্লে সাইজ ৬.৭৮ ইঞ্চি, রেজুলেশন ১০৮০×২৪৬০ পিক্সেল এবং দেওয়া হয়েছে ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট। ডিসপ্লে ফুল এইচডি থাকলেও এটা একটি আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে। ১৫ হাজার টাকার মোবাইলে এই রকম ডিসপ্লে পাবেন এটাই নরমাল। 

পারফর্মেন্সঃ  এই মোবাইলটির প্রসেসর সেকশনে ব্যাবহার করা হয়েছে খুব ভালো একটা চিপ্সেট মিডিয়াটেক হিলিও জি৮৮ যেটা দিয়ে খেলা যাবে সব ধরনের গেম। সব ধরনের গেম খেলা যাবে মানে এই দামের মধ্যে এটা আপনাকে সবচেয়ে ভালো গেমিং পারফর্মেন্স দিবে এটাই বুজাতে চাচ্ছি। 

তাছাড়া মোবাইলটি পাবেন ৪ জিবি এবং ৮ জিবি রেমের দুটি ব্যারিয়ান্টে। রোম থাকছে ১২৮ জিবি। 

ক্যামেরাঃ বর্তমান মোবাইল বাজারে কম দামে ভালো ফোন পাওয়া যায়। কিন্তু কম দামের ফোন গুলোতে ভালো ক্যামেরা ব্যাবহার করা হয়েনা। তবে এই মোবাইলটির ক্যামেরা ১৫ হাজার টাকা বাজেটে আপনাকে হতাশ করবেনা। 

ব্যাক ক্যামেরায় দেওয়া হয়েছে ৫০+২ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ল্যান্স। মোটামুটি ভালো মানের ছবি তুলা যাবে এই মোবাইল দিয়ে কিন্তু ভিডিও করতে পারবেন কোয়াড এইচডিতে যা ২০-২৫ হাজার মোবাইলেও থাকেনা। 

ফ্রন্ট ক্যামেরায় ব্যাবহার করা হয়েছে একটি ল্যান্স সেটা হলো ৮ মেগাপিক্সেল। ফ্রন্ট ক্যামেরা দিয়েও ভালো ছবি তুলার যাবে, করা যাবে ফুল এইচডি ভিডিও। 

ব্যাটারিঃ এই মোবাইলটি ব্যাটারিতে করেছে বাজীমাত কারণ এই দামের সেরা ব্যাটারি ব্যাকআপ ও ফাস্ট চার্জার সাপোর্ট পাচ্ছেন এই মোবাইলে। মোবাইলে দেওয়া হয়েছে ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি সেই সাথে পাচ্ছেন সুপার ফাস্ট ৩৩ ওয়াট চার্জার যা আপনার মোবাইলকে ৫৫% চার্জ করবে মাত্র ৩০ মিনিটে। এটা সত্যিই অসাধারণ। 

মতামতঃ আমি মনে করি আমাদের এই তালিকার কোন মোবাইল নিয়ে মতামত দেওয়ার কোন প্রয়োজন নেই। কারণ আমরা যেই মোবাইল গুলো নিয়ে এই পোস্ট-এ লিখেছি সেগুলো এই দামের মধ্যে সবচেয়ে সেরা। এই গুলো যেমন কম দামে ভালো ফোন টিক তেমনি এই মোবাইল গুলো যেই বাজেটের সেই বাজেটের মধ্যে এর থেকে ভালো ফোন আর একটাও নেই। 

আমরা অনেক রিসার্চ করার পর এই মোবাইল গুলো বাছাই করেছি, তাই আমি বলব আমাদের এই তালিকার যেই মোবাইলের দাম আপনার বাজেটের সাথে মিলে যাবে সেটাই আপনি চোখ বন্ধ করে কিনে নিবেন। 

কম দামে ভালো ফোন

 

Infinix Hot 13 Full Specification

নেটওয়ার্কঃ৪জি
সিমঃদুটি ছোট সিম 
ডিসপ্লেঃ৬.৭৮ ইঞ্চি ১০৮০ × ২৪৬০ (৯০ হার্জ)
ব্যাক ক্যামেরাঃডুয়াল ৫০+২ মেগাপিক্সেল ল্যান্স
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ৮ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ৫০০০ এমএএইচ, ৩৩ ওয়াট চার্জার
অপারেটিং সিস্টেমঃএন্ড্রয়েড ১৩
প্রসেসরমিডিয়াটেক হিলিও জি৮৮
রেমঃ৪/৮ জিবি 
রমঃ১২৮ জিবি 
দামঃ(৪-১২৮) ১৪৯৯৯ টাকা

৫- কম দামে ভালো গেমিং ফোন | Redmi 11 Prime

আমাদের লিস্টে থাকা এই মোবাইলটি খুব ভালো গেমিং পারফর্মেন্স করবে। তবে বলে রাখা ভালো এটি একটি আনঅফিসিয়াল মোবাইল। 

মোবাইলটিতে আছে পাওয়ার ফুল প্রচেচর। সাথে থাকছে ডিসেন্ট ক্যামেরা। চলুন বিস্তারিত জানি। 

ডিসপ্লেঃ এই মোবাইলটির ডিসপ্লে তে দেওয়া হয়েছে ফুল এইচডি আইপিএস এলসিডি টাচস্কিন সাথে আছে ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট। ডিসপ্লে সাইজ ৬.৫৮” ইঞ্চি। ১৭ হাজার টাকায় এটা খুবি ভালো একটি ডিসপ্লে। 

পারফর্মেন্সঃ ১৭ হাজার টাকার মধ্যে গেমিং ফোন খুব বেশি পাওয়া জায়না বললেই চলে। পাওয়া গেলেও তার প্রসেসর মোটামুটি পর্যায়ে থাকে কিন্তু এই মোবাইলটি যেমন কম দামে ভালো ফোন তেমনি গেমিং-এর জন্য দিচ্ছে পাওয়ারফুল প্রসেসর মেডিয়াটেক হেলিও জি৯৯, রেম থাকছে ৬ জিবি রোম ১২৮ জিবি। 

আপনি PUBG কিংবা Free Fire যেই গেমই খেলেন এই মোবাইল আপনাকে দিবে অসাধারন গেমিং এক্সপেরিয়েন্স। 

ক্যামেরাঃ কম দামের এই গেমিং ফোন -এর ব্যাক ক্যামেরায় ব্যাবহার করা হয়েছে ৫০+২+২ মেগাপিক্সেলের তিনটি ল্যান্স। ক্যামেরাটি ভালো তবে খুব যে ভালো তা বলা যাবেনা। ফ্রন্ট ক্যামেরায় দেওয়া হয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের একটি ল্যান্স যেটা দিয়েও ডিসেন্ট একটা পারফর্মেন্স পাবেন। 

ব্যাটারিঃ কম দামে ভালো এই গেমিং ফোন-কে সাপোর্ট দেওয়ার জন্য রয়েছে ৫০০০ এমএএইচ এর বিশাল বড় ব্যাটারি। সাথে থাকছে ১৮ ফাস্ট চার্জার। 

মতামতঃ আপনার বাজেট কি ১৭ হাজার টাকা? এই দামের মধ্যে সবচেয়ে ভালো গেমিং ফোন কিনতে চান? তাহলে এই মোবাইল আপনার জন্যই। ২০ হাজার টাকার মধ্যে এর থেকে ভালো গেমিং ফোন আর একটাও নেই বাংলাদেশের মোবাইল বাজারে। নিশ্চই এটা আপনার পছন্দ হওয়ার কথা। তবে মনে রাখবেন মোবাইলটি কিন্তু আনফিসিয়াল। 

কম দামে ভালো ফোন

 

Redmi 11 Prime Full Specification

নেটওয়ার্কঃ৪জি
সিমঃদুটি ছোট সিম 
ডিসপ্লেঃ৬.৫৮ ইঞ্চি ১০৮০ × ২৪০৮ (৯০ হার্জ)
ব্যাক ক্যামেরাঃ৫০+২+২ মেগাপিক্সেল তিনটি ল্যান্স
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ৮ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ৫০০০ এমএএইচ, ১৮ ওয়াট চার্জার
অপারেটিং সিস্টেমঃএন্ড্রয়েড ১২
প্রসেসরমিডিয়াটেক হিলিও জি৯৯
রেমঃ৬ জিবি 
রমঃ১২৮ জিবি 
দামঃ(৬-১২৮) ১৭০০০ টাকা (unofficial)

৬- ১৭ হাজার টাকায় সেরা গেমিং ফোন ও ক্যামেরা ফোন | Realme 10 

আমাদের লিস্টে থাকা এই মোবাইলটি একটু স্পেশাল কারণ এখন পর্যন্ত আমারা যতগুলো মোবাইল দেখেছি তার মধ্যে কোনোটা হয়তু গেমিং এর জন্য ভালো আবার কোনোটা ক্যামেরা এর জন্য ভালো কিন্তু এই মোবাইলটি একি সাথে সব দিক থেকে ভালো। মোবাইলটির দাম মাত্র ১৭ হাজার টাকা। 

তবে এই মোবাইলটির রেম রোম একটু কম ৪-৬৪ জিবি। ৮/১২৮ জিবির ভার্সন আছে তবে ওইটার আবার দাম অনেক বেশি ২২ হাজার টাকা।  তাই আমরা শুধু মাত্র ৪-৬৪ ভার্সনের মোবাইল নিয়ে কথা বলব। 

ডিসপ্লেঃ এখন পর্যন্ত আমরা যতগুলো মোবাইল নিয়ে কথা বলেছি তার মধ্যে কোনো মোবাইলের ডিসপ্লেতেই ছিলনা সুপার এমোলেড ডিসপ্লে। তবে আমাদের এই মোবাইলে থাকছে ৬.৪ ইঞ্চির সুপার এমোলেড ডিসপ্লে তার সাথে আছে ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট। 

বলাই যায় ১৭ হাজার টাকার মধ্যে এই মোবাইল শুধু গেমিং কিংবা ক্যামেরায় না চমক দিচ্ছে ডিসপ্লে তেও। 

পারফর্মেন্সঃ এই মোবাইলেও পূর্বের মোবাইলের মত মিডিয়াটেক হেলিও জি ৯৯ ব্যাবহার করা হয়েছে। এই প্রসেসর গেমিংয়ের জন্য পরীক্ষিত একটি প্রসেসর তাই আর বেশি কথা বললাম না। তবে রেম একটু কম হওয়ায় মাজে মধ্যে কিছুটা সমস্যা হতে পারে। 

ক্যামেরাঃ  এই মোবাইলের ব্যাক ক্যামেরা ব্যাবহার করা হয়েছে দুটি ৫০+২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। এক কথায় বলতে চাই ১৭ হাজার টাকা দামের এই মোবাইলে এই বাজেটের মধ্যে টাকা সব মোবাইল থেকে ভালো ক্যামেরা পারফর্মেন্স পাবেন। ফ্রন্ট ক্যামেরায় ব্যাবহার করা হয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেলের একটি ল্যান্স এটা দিয়েও তুলা যাবে ভালো ছবি। 

ব্যাটারিঃ সব মোবাইলের মত এটায়ও দেওয়া হয়েছে ৫০০০ এমএএইচ এর বড় ব্যাটারি। চার্জ করা যাবে খুবি দ্রুত দেওয়া হয়েছে ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট। 

মতামতঃ এই মোবাইলের কেত্রে মতামত দেওয়ার কোন প্রয়োজন নেই। কারণ এই একটা মাত্র মোবাইল যেটা কিনা যে কেউ নিতে পারবেন। যেমন তার ডিজাইন, ডিসপ্লে, ক্যামেরা কিংবা গেমিং সব কিছুতেই সেরা। 

তবে আপনার যদি ৪ জিবি রেম দিয়ে না চলে তাহলে আপনি নিতে পারেন সেটার ৮/১২৮ জিবি ভার্সন। সেটার দাম প্রায় ২২ হাজার টাকা। 

তবে আমি বলব আপনি যদি ২২ হাজার দিয়ে এই মোবাইলটি নিতে চান তাহলে এটা না নেয়াই ভালো কারণ ২২ হাজার টাকায় এর থেকে ভালো মোবাইল পাওয়া যাচ্ছে তাহলে কেনো আপনি এটা নিবেন। তবে হ্যাঁ ১৭ হাজার টাকা বাজেট থাকলে এটা নেওয়াই সবচেয়ে ভালো। 

কম দামে ভালো ফোন

Realme 10 Full Specification

নেটওয়ার্কঃ৪জি
সিমঃদুটি ছোট সিম 
ডিসপ্লেঃ৬.4 ইঞ্চি ১০৮০ × ২৪০০ (৯০ হার্জ)
ব্যাক ক্যামেরাঃ৫০+২ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ল্যান্স
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ৮ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ৫০০০ এমএএইচ, ৩৩ ওয়াট চার্জার
অপারেটিং সিস্টেমঃএন্ড্রয়েড ১২
প্রসেসরমিডিয়াটেক হিলিও জি৯৯
রেমঃ৪/৮ জিবি 
রমঃ৬৪/১২৮ জিবি 
দামঃ(৪-৬৪) ১৭০০০ টাকা, (৮-১২৮) ২১৮০০ টাকা।

শেষ কথা 

কম দামে ভালো ফোন কিনার আগে অবশ্যই ভালো করে জেনে নিন মোবাইল ভালো কি না। আপনার যেই পারফর্মেন্স তা ভালো দরকার সেটা পাচ্ছেন কি না। একটা মোবাইল কখনো পারফেক্ট হয়না এটা মাতায় রাখুন। একটা মোবাইলে আপনি সব কিছু ভালো পাবেন না। 

তাই আমি বলব আপনার যদি গেমিং করার ইচ্ছা থাকে তাহলে যেই ফোন গেমিং এর জন্য ভালো আপনি সেই ফোন নিন। যদি ক্যামেরা বেশি দরকার হয় তাহলে যেই ফোন ক্যামেরা ভালো সেটা নিন। এই রকম ভাবে ফোন নির্বাচন করুন।

5 thoughts on “সবচেয়ে সেরা ৬টি কম দামে ভালো ফোন 2023 | Best Phone in BD”

  1. Pingback: সবচেয়ে কম দামে বাটন মোবাইল | Best ৯ টি বাটন মোবাইল 2023

  2. আমার নাম ভাই সিমন আমি আপনার পোস্টটা দেখলাম গুগোল এ এখন ভাই রিয়েল না হলে রেডমি এর মধ্যে একটা ভালো মোবাইল দেন আর আমার সাথে কন্টাক কিভাবে করবেন এটা প্রশ্ন না আমার ইমেইল ইমেইলটা দিয়েছি আপনি ওইখানে আমাকে ফোন বা মেসেজ দিয়েন রুলাম ভাই ভালো একটা মোবাইল দেন

  3. অনলাইনে জমির খতিয়ান অনুসন্ধান
    ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান
    নামজারি খতিয়ান অনুসন্ধান
    খতিয়ান ও দাগের তথ্য অনুসন্ধান করার সহজ নিয়ম
    আর এস খতিয়ান অনুসন্ধান করার সহজ নিয়ম
    ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোন পদ্ধতি
    গ্রামে বাড়ি করার জন্য ব্যাংক লোন নিন সহজে
    প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক লোন অনলাইন আবেদন করার নিয়ম
    প্রধানমন্ত্রী লোন বাংলাদেশ
    কৃষি ব্যাংক লোন নেওয়ার নিয়ম যেনে লোন নিন সহজেই
    ডাচ বাংলা ব্যাংক লোন
    আশা এনজিও লোন পদ্ধতি
    10000 টাকার মধ্যে ভিভো মোবাইল 2023
    12 হাজার টাকার মোবাইল Vivo
    ৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন বাংলাদেশ
    ৪০০০ টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল
    ১৫০০০ টাকার মধ্যে ভালো গেমিং ফোন
    সবচেয়ে সেরা কম দামে বাটন মোবাইল
    Itel বাটন মোবাইলের দাম ও ছবি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *